Monday, September 11, 2006

জলের কবিতা


ভেজার ইচ্ছে আমার খানিক ছিলো
খুকিই তাকে উসকে অনেক দিলো
আলতো হেসে আমার পাশে এসে
জলের ধারা নিজের গায়ে নিলো।

আকাশ তখন ভার করেছে মুখ-ই
খুকি তবু তাকে দেখেই সুখী
বাজের আলোর তাল মিলিয়ে হেসে
বৃষ্টি মাথায় বেড়ায় ছুটে খুকি।

তেপান্তরের সেই গহীনে ঠায়
ভিজেই কাটে আমার বিকেল হায়
বাতাস কাঁপে মেঘের ধমক শুনে
খুকির হাসির দমক বেড়ে যায়।

মেঘদেবতার মুড ভালো নেই বুঝি
শিলের পাহাড় ছিলো কি তাঁর পুঁজি?
ভীষণ বেগে পড়তে থাকে তারা।
সেই তুফানে খুকিকে কই খুঁজি?

হাত বাড়িয়ে ধরতে তাকে গেলে
চমকে উঠে দেয় সে আমায় ঠেলে
আমরা দু'জন ছুটতে থাকি দূরে
পিপুল গাছ এক যেথায় বাহু মেলে।

গাছের নিচে ক্ষুণ্ন মনে বসে
খুকির চোখে অশ্রু পড়ে খসে
বেশ তো ছিলো জলের সাথে খেলা
বিগড়ে গেলো সবই ঝড়ের দোষে।

থামলো শেষে ঝড়ের মাতামাতি .. ..
হাওয়ার সাথে গাছের হাতাহাতি .. ..
তেপান্তরে শিলের ঝিকিমিকি .. ..
খুকি আমার সে উদ্ভাসের সাথী।

কিন্তু নিপাট সরল মনে
শুধিয়েছিলেম, "শিল কুড়াতে যাবে?"
ভাবলো কী তা কে বা জানে
মুখ ফেরালো ভীষণ অসদ্ভাবে।

.. .. শিলগুলো সব জল হয়েছে গলে
খুকিও গেছে নিজের পথে চলে
আমিই শুধু একলা ভেজা মনে
অশ্রু শিশির মেশাই মেঘের জলে।

(রচনাকাল : অক্টোবর ২০, ২০০৫)

No comments: